জন্মদাত্রী মানেই মা নয়

মা  মানেই মহান নয় ,  জন্মদাত্রী হলেই সে মা হয় না ।

বাংলা সিনেমার একটা বিখ্যাত ডায়লোগ হল // আমি তোমার সন্তানের মা হতে চলেছি //  অথচ কথাটা হওয়া উচিৎ ছিল // আমি আমাদের সন্তানের মা হতে চলেছি ! //

একজন বিবাহিত নারী যখন জানে তার  গর্ভে  একটা ভ্রূণ এর অস্তিত্ব এসেছে , তখন সে নিজের অজান্তেই ধরে নেয়, সে তার স্বামীকে কোন একটা উপহার দিতে যাচ্ছে। সে তখন পুরুষতান্ত্রিক সমাজ থেকে শিখে আসা মাতৃত্বের মহিমার  অংশ হতে পেরে গর্বিত বোধ করে। অথচ বিবাহিত না হলে তার কাছে এই সন্তান সব চেয়ে বড় লজ্জার কারণ হত।

যে ভ্রূণ সবে মাত্র তার গর্ভে এসেছে,  তার প্রতি তো মায়া জন্মানোর প্রিক্রিয়া শুরুই হয়নি।  সেখানে মাতৃত্বের সূচনাই হয় না, মা হওয়া তো বহু দুরের পথ । কিন্তু এই সামাজ তাকে শিখিয়েছে নারী যখন স্বামীর ভ্রূণ তার গর্ভে ধরান করে তখনি হয় সম্মানিত, তাই সে আনন্দিত।  এখানে সে তার অনাগত সন্তানের আনন্দের চেয়ে স্বামীর খুশির কারণ হতে পেরে আনন্দিত হয়। এই অনাগত সন্তান, তার স্বামী এবং সমাজের প্রতি কর্তিত্ব  স্থাপনের হাতিয়ারও বটে ।

সন্তান জন্ম দিলেই কি মা হয় ? মা হওয়া কি এত সহজ ?

ভারতের বিখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা সঞ্জয় লীলা বনশালির নাম শুনে অনেকেই ভাবে এ কেমন নাম ! লীলা তো কোন বংশ না বরং মেয়েদের নাম হয়। তাহলে কেন সঞ্জয় তার নামের সাথে লীলা যুক্ত করল ?

এই নামের রহস্য হল, বনশালি তার মা লীলা বনশালির নাম থেকে “লীলা” নামটি গ্রহণ করেছেন। সিমি গারেওয়াল এর এক ইন্টার্ভিউ তে সঞ্জয় বলেছিল আমার মা আমার জন্য যা করেছেন তার ধন্যবাদ স্বরূপ আমি আমার নামের সাথে মায়ের নামটা যুক্ত করেছি।  আমার মা সমস্ত সংসার একাই  সামলেছেন , আমার বাবা কোন দায়িত্ব পালনের মধ্যে ছিল না। আমাদের এমন দিন গেছে যখন খাবার কেনার মত টাকা সঞ্চয় হত না,  কিন্তু আমার মা কখনো ভাঙতেন না , বলতেন এটাই জীবন এবং এর সাথে লড়েই জিততে হবে ।

লীলা তার সন্তানদের বলেতেন  //  স্বপ্ন সব তোদের, আর সমস্ত দুঃস্বপ্ন শুধুই আমার //
এটা একজন জন্ম দাত্রীর,  মা হয়ে ওঠার সংগ্রাম । ঠিক এর বাইরেও উদাহরণ আছে ,  নিজের সন্তানকে খুন করে ফেলা মা ও আছে। এমন মা ও আছে যারা স্কুলে গিয়ে  স্যারদের বলে আসেন , মারেন কাটেন কোন সমস্যা নাই,  শুধু রেজাল্ট ভাল হলেই হবে !

এমন মা তো আমাদের সমাজে কম না যারা কন্যা সন্তান কে শেখান , মারুক কাটুক স্বামীর ঘরেই থাকতে হবে। সংসার করতেই হবে। স্বামীর ঘরই মেয়েদের আসল ঘর। ধর্ষিতা মেয়ে কে  চুপ থাকতে বলেন।

আবার কোন কোন মা তার ছেলেকে নিজের ইচ্ছা অনুযায়ী মেয়ে বিয়ে করতে বাধ্য করেন ।
তবে কি করে সব মায়েদের মহান বলি ?

বছর খানেক আগেই  ভারতীয় চলচ্চিত্র নির্মাতা করণ জোহর সিঙ্গেল বাবা  হয়েছেন। উনি একজন মহিলার গর্ভ ভাড়া করে নিজের সন্তানের জন্ম দিয়েছেন । এখানে ও নারী মোটেও  মা হন নি। পুরটাই ছিল বিজনেস । সেই একই পদ্ধতিতে বাবা হয়েছিলেন শাহরুখ খানও ।

গর্ভে ভ্রূণ ধারন করলেই সে মা হয় না। শুধু সামাজিক দায় বদ্ধতা থেকে সন্তান লালন পালন করলেই মা হয় না । একজন জন্ম দাত্রী তখননি মা হয়ে ওঠেন যখন সে সন্তানের সঠিক লালন পালন করেন ।


একজন সন্তান কে সুস্থ এবং সঠিক মানুষ হবার শিক্ষা দেন । সন্তানের নৈতিকতা বিকাশে সহায়ক হন এবং সন্তান কে হারতে নয় , মাথা  নত করতে নয় বরং হার কে হারানোর শিক্ষা দেন ।

একজন নারী তখনই মা হন,  যখন সে তার সন্তান কে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করেন।  তার আগে সে কেবল একজন জন্মদাত্রী ।

মা মানেই মহান নয় , জন্ম দিলেই কেউ মা হতে পারেনা না।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

+ অনুসরণ

Get the latest posts delivered to your mailbox: